অল্টারনেটর নিয়ে সহজ ভাষায় বিস্তারিত আলোচনা | Alternator Bangla

2
3467
অল্টারনেটর

অল্টারনেটর নিয়ে সহজ ভাষায় বিস্তারিত আলোচনা

প্রিয় বন্ধুরা আজ আমরা অল্টারনেটর নিয়ে বিস্তারিত জানতে চেষ্টা করব। আমাদের ইলেক্ট্রিক্যাল কাজের প্রায় অপরিহার্য অঙ্গ হচ্ছে অল্টারনেটর। তাই চলুন আজ অল্টারনেটর নিয়ে খুঁটিনাটি জানি আমরা।

আমরা আজ অল্টারনেটরের যেসব বিষয় জানবো সেগুলো হলঃ

১। অল্টারনেটর কি?

২। অল্টারনেটরের বিভিন্ন লস সমূহ।

৩। অল্টারনেটরের প্যারালাল অপারেশনের শর্তসমূহ।

৪। সিনক্রোনাইজিং কি জিনিস এবং এটা করার কারণ কি?

৫। কেন অল্টারনেটরের আর্মেচারকে স্থির রাখা হয় এবং ফিল্ডকে ঘুরানো হয়?

৬। অল্টারনেটরের ফ্রাকশনাল পিচ ওয়েন্ডিং এর সুবিধা কি?

৭। কেন অল্টারনেটরের রেটিং KW  না লিখে KVA লিখা হয়?

৮। অল্টারনেটরের হান্টিং কি? হান্টিং দূর করার উপায় কি কি?

অল্টারনেটর
অল্টারনেটর

 

চলুন এবার আমরা উপরের আটটা (০৮) বিষয়ের ব্যাপারে বিস্তারিত যেনে নেইঃ

১। অল্টারনেটর কি?

অল্টারনেটর কে আমরা এসি জেনারেটরও বলে থাকি। ডিসি জেনারেটর এবং এসি জেনারেটর প্রায় এক হলেও তাদের মাঝে কিছু পার্থক্য আছে। মূলত অল্টারনেটর হচ্ছে এমন এক ধরনের ডিভাইস যার মাধ্যমে যান্ত্রিক শক্তিকে বৈদ্যুতিক শক্তিতে রূপান্তরিত করা হয়ে থাকে। অল্টারনেটরের আর্মেচারকে  স্থির রাখা হয় এবং ফিল্ডকে ঘুরানো হয়, এটা সাধারানত প্রাইম মুভারের সাহায্যে ঘুরানো হয়। ঘূর্ণনের কারনে ফিল্ডে উৎপন্ন ফ্লাক্স বা চুম্বক ক্ষেত্র আর্মেচার কন্ডাক্টরকে কর্তন করলে এর (কন্ডাক্টর) মাঝে এসি ইএমএফ উৎপন্ন হয় তারপরে এসি ইএমএফ স্লিপ রিং হয়ে লোডে কারেন্ট সরবরাহ দেয়া হয়।

অল্টারনেটর ফিল্ড, আর্মেচার এবং এক্সাইটার নিয়ে গঠিত। এক্সাইটার মূলত ফিল্ডে চুম্বক ক্ষেত্র তৈরির কাজে ব্যবহার করা হয়। অল্টারনেটর ফ্যারাডারে ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক ইন্ডাকশন নীতি অনুযায়ী পরিবাহীতে ইএমএফ উৎপন্ন করে থাকে।

২। অল্টারনেটরের বিভিন্ন লস সমূহ।

অল্টারনেটরে সাধারানত দুই প্রকার লস হয়,

(০১) কপার লস ,কপার লস দুই প্রকার,(ক) আর্মেচার কপার লস ।

                                           (খ) ফিল্ড কপার লস ।

(০২) কোর লস ,কোর লস দুই প্রকার, (ক) এডি কারেন্ট লস ।

                                           (খ) হিস্টেরেসিস  লস ।

 

৩। অল্টারনেটরের প্যারালাল অপারেশনের শর্তসমূহ।

১) টার্মিনালের ভোল্টেজ অবশ্যই সমান হতে হবে।

২) পোলারিটি এক হতে হবে।

অল্টারনেটর
অল্টারনেটর

৩) অল্টারনেটরের স্পিড এমনভাবে রাখতে হবে জাতে করে ফ্রিকুয়েন্সি সমান থাকে।

৪) ফেজ সিকুয়েন্স অবশ্যই এক হতে হবে।

৪। সিনক্রোনাইজিং কি জিনিস এবং এটা করার কারণ কি?

অল্টারনেটরের সর্বোচ্চ যে পরিমাণ লোড উৎপাদন ক্ষমতা থাকে তার থেকে যখন লোডের চাহিদা বেড়ে যায় তখন লোড যেন বন্ধ হয়ে না যায় সেটার উদ্দেশে  দুই বা ততোধিক  অল্টারনেটরকে প্যারালাল অপারেশনের মাধ্যমে চাহিদা অনুযায়ী লোড সরবরাহ করা হয়, আর এই পদ্ধতিকেই সিনক্রোনাইজিং বলে। এটা শুধু চাহিদা অনুযায়ী লোড সরবরাহ করার জন্য নয়, অনেক সময়  অল্টারনেটর মেরামতের প্রয়োজন হয় তখন লোডে সবসময় সরবরাহ রাখার উদ্দেশে সিনক্রোনাইজিং করা হয়।

৫। কেন অল্টারনেটরের আর্মেচারকে স্থির রাখা হয় এবং ফিল্ডকে ঘুরানো হয়?

আর্মেচার ওয়েন্ডিং তুলনামূলক বেশ কঠিন ফিল্ড ওয়েন্ডিং এর তুলনায়। তাই আর্মেচার স্থির রাখলে সুবিধা হয়। আর্মেচার ওয়েন্ডিং এ বেশি কন্ডাক্টর থাকে তাই এটার ওজন অনেক বেশি হয় ফিল্ড ওয়েন্ডিং এর তুলনায়। আর যেহেতু ওজন অনেক বেশি তাই এটাকে ঘুরানোর জন্য বড় প্রাইম মুভারের প্রয়োজন। তাই আর্মেচার স্থির রাখা সুভিধাজনক। আবার যখন উচ্চ ভোল্টেজ উতপন্ন হয় তখন ঘুরন্ত অবস্থায় আর্মেচার থেকে কার্বন ব্রাশ এবং স্লিপ রিং দিয়ে এই উচ্চ ভোল্টেজ গ্রহন করা খুব কথিন। আবার আর্মেচার কে স্থির রাখলে আমরা অনেক বেশি কন্ডাক্টর বসাতে পারব। সেন্ট্রিফিউগাল যে ফোর্সটা থাকে সেটা থেকে রক্ষা পাবার জন্যও আর্মেচার স্থির রাখা সুবিধা। তাই অল্টারনেটরের আর্মেচারকে স্থির রাখা হয় এবং ফিল্ডকে ঘুরানো হয়।

৬। অল্টারনেটরের ফ্রাকশনাল পিচ ওয়েন্ডিং এর সুবিধা কি?

উৎপন্ন ভল্টেজ পূর্ণ সাইন ওয়েভ পেতে হলে ফ্রাকশনাল পিচ ওয়েন্ডিং ব্যবহার করতে হয়। ফ্রাকশনাল পিচের ওয়েন্ডিং এর কারনে কন্ডাক্টরের দূরত্ব কমে যায়, তাই এর ইন্ডাকট্যান্সের এবং কপারের পরিমান কম লাগে। ফ্রাকশনাল পিচ ওয়েন্ডিং এর কারনে হিস্টেরেসিস  লস এবং এডি কারেন্ট লস কমে যায়।

৭। কেন অল্টারনেটরের রেটিং KW  না লিখে KVA লিখা হয়?

অল্টারনেটরের রেটিং KVA লিখা হয় এটা KW লিখা হয়না কারন অল্টারনেটরের কোর লস নির্ভর করে ভোল্টেজের উপরে আর কপার লস নির্ভর করে কারেন্ট এর উপরে। তাহলে সহজ ভাষায় বলা যায় অল্টারনেটরের মোট লস নির্ভর করে কারেন্ট আর ভোল্টেজের উপরে যেখানে কোন ফেজ এঙ্গেল নেই, শুধুমাত্র ভোল্টেজে আর কারেন্ট(AV) এর উপরে। পাওয়ার ফ্যাক্টর সাধারনত জরিত থাকে কিলোওয়াট   (KW) রেটিং এর সাথে। কিন্তু যারা অল্টারনেটর প্রস্তুত করে তাদের জানা সম্ভব হয়না যে অল্টারনেটরে পরে কন ধরনের পাওয়ার ফ্যাক্টর ব্যবহার করা হবে। আবার মোট লসের সাথে পাওয়ার ফ্যাক্টর পরিবর্তনের কোন সম্পর্ক থাকেনা। তাই অল্টারনেটরের রেটিং KW  না লিখে KVA লিখা হয়ে থাকে।

অল্টারনেটর
অল্টারনেটর

৮। অল্টারনেটরের হান্টিং কি? হান্টিং দূর করার উপায় কি কি?

সাধারনত দুটি অল্টারনেটর যখন প্যারালাল এ চলতে থাকে তখন দুটি অল্টারনেটরের টার্মিনালের ভোল্টেজ প্রায় সমান থাকে কিন্তু কোন সময় যদি টার্মিনালের কনটার ভোল্টেজ কমে গেলে অথবা বন্ধ হয়ে গেলে অন্য অল্টারনেটরের ভোল্টেজ খুব দ্রুত বেরে যায় তখন কারেন্ট কমে যাওয়া অল্টারনেটরের মাঝে প্রবেশ করতে থাকে এবং হান্টিং তৈরি হয়। আবার অল্টারনেটরের ফ্রিকুয়েন্সি কমবেশি হলেও হান্টিং তৈরি হয়।

হান্টিং দূর করার উপায়গুলো হচ্ছে।(১) হেভি ফ্লাই হুইল ব্যাবহারের মাধ্যমে এবং (২) ডেম্পার ওয়েন্ডিং ব্যবহার করে হান্টিং দূর করা যায়।

প্রিয় পাঠক এটাই ছিল অল্টারনেটর নিয়ে আমাদের আজকের আয়জন। আমাদের লিখাগুলোতে ভুল থাকলে আপনাদের সাহায্য কামনা করছি এবং আপনাদের কোন প্রশ্ন থাকলে আমাদের কমান্ট বক্সে লিখুন আমরা আপনাদের সবগুলো প্রশ্নের উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব। সাথেই থাকুন ইইই ক্যারিয়ারের

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY