ফায়ার এলার্ম বানাবার সহজ পদ্ধতি জেনে নিন | Fire Alarm Project in Bangla

1
4178
ফায়ার এলার্ম

buy zithromax 500mg online ফায়ার এলার্ম বানাবার সহজ পদ্ধতি জেনে নিন

আজ আমরা ফায়ার এলার্ম কিভাবে তৈরি করা যায় সেটা সম্পর্কে জানবো । আমাদের আজকের প্রোজেক্টটি খুবই জরুরী একটি প্রোজেক্ট । এইটা আমরা যেখানে ব্যবহার করবো সেখানে কখনো কোন কারনে আগুন লাগার সাথে সাথেই এলার্ম বেজে উঠবে । আমরা এই এলার্ম শোনার পরে নিরাপদে সরে যাবার চেস্টা করতে পারবো এবং আগুন কিভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায় সেটার চেস্টা করবো ।

their website ফায়ার এলার্ম এর প্রয়োজনীয়তা

ফায়ার এলার্ম অগ্নিকান্ডের চ্যালেন্জ মোকাবেলা করার জন্য একটি আধুনিক ইলেকট্রনিক প্রযুক্তি । আমাদের দেশে প্রায় সময়ই অগ্নিকান্ডের কারনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয় এবং অনেক প্রান অকালে ঝরে পড়ে । এছারাও অনেক সম্পদের ক্ষতির সম্মখীন হয়ে থাকি আমরা । আর এই অগ্নিকান্ডের প্রধান কারন হচ্ছে, আমাদের অসাবধানতা । আমরা যদি সাবধান থাকি তাহলে এই বিপদ থেকে অনেকটা নিরাপদ থাকতে পারবো । কোন অনাকাঙ্খিত আগুন যাতে খুব দ্রুত নিয়ন্ত্রনে আনা যায় তার জন্য আমরা ফায়ার এলার্ম ব্যবহার করবো ।

https://www.ivanhome.com/876-dte86671-free-senior-dating-sites-in-my-area.html ওয়াটার লেভেল কন্ট্রোলার প্রজেক্টি বানাতে হলে এখানে যান 

web link ফায়ার এলার্ম তৈরিতে প্রয়োজনীয় কম্পোনেন্ট

আমাদের আজকের ফায়ার এলার্ম প্রোজেক্ট তৈরি করতে যে যে কম্পোনেন্ট লাগবে সেগুলোর একটি লিস্ট দেয়া হলোঃ

১। ট্রানজিস্টর (BC547/ BC548/ C828/ D400) -১ পিস ।

২। রেজিস্টর 1KΩ -১ পিস ।

৩। ভেরিয়েবল রেজিস্টর 10 KΩ  -১ পিস ।

৪। থার্মিস্টর অথবা টিউব লাইট স্টার্টারের ভিতরের ছোট লাইট -১ পিস ।

৫। বাজার (Buzzer) / LED -১ পিস ।

৬। ক্যাপাসিটর 10uF -১ পিস ।

৭। ডায়োড (1N4007/ 1N4148 ) -১ পিস ।

ফায়ার এলার্ম তৈরির সার্কিট ডায়াগ্রাম

আপনারা আমাদের তুলে ধরা নিম্নের সার্কিট ডায়াগ্রাম অনুসারে কাজ করলে খুব সহজে এবং কম সময়ের মাঝে আজকের প্রোজেক্ট তৈরি করে ফেলতে পারবেন ।

ফায়ার এলার্মপ্রোজেক্ট তৈরির কার্যপ্রণালী

♦ আমাদের তুলে ধরা সার্কিটে একটি ট্রানজিস্টর দেয়া আছে । এখানে এটি মূলত একটি সুইচিং সার্কিট হিসেবে কাজ করতেছে । এখানে চাইলে আমরা থার্মিস্টরের পরিবর্তে টিউব লাইটের স্টার্টার এর ভিতরের যে ছোট লাইট থাকে সেটা ব্যবহার করতে পারি । এটি এখানে সেন্সর হিসাবে কাজ করবে বা সেন্সরের ভূমিকা পালন করবে ।

♦ যখন কোথাও কোন আগুন বা তাপের অনুভতি পাবে এই সেন্সর ঠিক তখনি এই সার্কিটে থাকা LED বা বাজারটি সংকেত দেয়া শুরু করে দিবে ।

♦ উপড়ের লাইনটা থেকেই আপনারা বুঝতে পারছেন যে, যেখানে আগুন লাগার সম্ভাবনা বেশি থাকবে সেখানে উক্ত থার্মিস্টর বা স্টার্টার টিকে রাখতে হবে । উদাহারন সরূপ আমরা কিছু স্থান তুলে ধরছি যেমন, রান্নাঘর, মেইন সুইস, কোন গুদাম ঘড়ে, এলেক্ট্রিক তার আছে এমন যায়গায় , কোন কারখানায় আরো নানারকম গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ।

ওয়াটার লেভেল কন্ট্রোলার প্রজেক্টি বানাতে হলে এখানে যান 

আমাদের বাসার টিউব লাইটের স্টাটরের ভেতরে যা থাকে

নিম্নের চিত্র আপনারা খেয়াল করলে দেখতে পাবেন আমাদের বাসাবাড়ি অথবা অন্য কোথাও ব্যবহার করা টিউব লাইটের স্টাটরের ভেতরের অংশে কেমন দেখায় এবং সেখানে কি কি থাকে ।

ফায়ার এলার্ম

কিভাবে অ্যাডজাস্ট করবেন?

উপড়ে দেয়া সার্কিট ডায়াগ্রামে খেয়াল করলে দেখতে পাবেন সেখানে একটি ভেরিয়েবল রেজিস্টর দেয়া আছে । এটা দেয়ার কারন হচ্ছে এই ভেরিয়েবল রেজিস্টরটি যাতে আপনি কমবেশি করার মাধ্যমে সার্কিটের সেন্সিটিভিটি কমাতে বা বাড়াতে পারেন সেটার সুবিধার জন্য । আপনি যখন থার্মিস্টর ব্যবহার করবেন তখন আপনাকে এটি করতে হবে আর যখন স্টার্টার ব্যবহার করবেন তখন এটির ব্যাবহারের প্রয়োজন পরবেনা ।

থার্মিস্টর তাহলে কি?

যে কারো মনে প্রশ্ন আসতেই পারে যে থার্মিস্টর কি জিনিস ? আপনাদের এই প্রশ্নের উত্তর আমরা তুলে ধরছি এখানে । আসলে থার্মিস্টর মানে হচ্ছে থার্মাল রেজিস্টর । থার্মাল কথাটা থেকে আপনারা নিশ্চয় বুঝতে পারছেন যে এখানে তাপমাত্রা নিয়ে কোন ব্যাপার আছে । হুম একদম ঠিক ধরেছেন আপনি, থার্মিস্টর এর রেজিস্ট্যান্স তাপমাত্রার পরিবর্তনের সাথে পরিবর্তন হয় বলে একে থার্মিস্টর নাম দেয়া হয়েছে বা একে থার্মিস্টর বলে ।  আমরা নিচে কিছু থার্মিস্টরের চিত্র তুলে ধরছি ।

ফায়ার এলার্ম

আপনি চাইলে কিছু পরিবর্তন আনতে পারবেন

আপনি যে পরিবর্তনগুলো করতে পারবেন সেগুলো হলঃ

♠ আপনার প্রোজেক্টে মোটামোটি যেকোন মানের ডায়োড ব্যবহার করতে পারবেন ।

ওয়াটার লেভেল কন্ট্রোলার প্রজেক্টি বানাতে হলে এখানে যান 

♠ এখনে এলইডির (LED) পরিবর্তে আপনারা বাজার অথবা রিলে ব্যবহার করতে পারবেন ।

♠ আবার স্টাটরের ভিতরের ছোট লাইট ব্যবহার করতে পারেন থার্মিস্টরের পরিবর্তে ।

এবার আপনার ফায়ার এলার্ম প্রজেক্ট তৈরি । আপনার যেখানে ব্যবহার করা দরকার সেখানেই ব্যবহার করুন । ভাল লাগলে শেয়ার করে অন্যকে পড়ার জন্য উৎসাহিত করুন । আমাদের লিখাতে কোথাও বুঝতে না পারলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন । ভালো থাকুন সবাই, EEEcareer এর পক্ষ থেকে সবাইকে শুভকামনা ।

1 COMMENT

  1. Hello my family member! I wish to say that this post is awesome, nice written and include approximately all significant infos. I¦d like to peer extra posts like this .

LEAVE A REPLY