এসি এবং ডিসি কারেন্টের পার্থক্য ও সহজ বর্ণনা | AC Current and DC Current Bangla

6
7276
AC Current and DC Current Bangla

এসি এবং ডিসি কারেন্টের মাঝে পার্থক্য ও সহজ বর্ণনা |           AC Current and DC Current Bangla

আজ আমরা এসি কারেন্ট এবং ডিসি কারেন্টের (AC Current and DC Current Bangla) পার্থক্য এবং সহজ বর্ণনা জানবো । আমাদের মাঝে এসি কারেন্ট এবং ডিসি কারেন্টের মাঝে পার্থক্য নিয়ে প্রায়ই প্রশ্ন ছলে আশে । আবার অনেকসময় আমরা বুঝিনা কোন কারেন্ট বেশি বিপদজনক এসি কারেন্ট নাকি ডিসি কারেন্ট । তাই সংজ্ঞা সহ সকল প্রশ্নের উত্তরগুলো আমরা আজ জানতে চেষ্টা করবো ।

যে প্রশ্নগুলোর উত্তর জানবো আমরা আজ সেগুলো হলোঃ

১। এসি কারেন্ট (AC Current) কাকে বলে ?

২। ডিসি কারেন্ট (DC Current) কাকে বলে ?

৩। এসি কারেন্ট এবং ডিসি কারেন্টের মাঝে পার্থক্য কি ?

৪। এসি বেশি বিপদজনক নাকি ডিসি বেশি বিপদজনক ?

চলুন উপরের প্রশ্নগুলোর উত্তর জানি এবার,

চাকুরীর প্রশ্ন এবং উত্তর সমূহ পরতে এখানে ক্লিক করুন

এসি কারেন্ট (AC Current)

এসি কারেন্ট বা অল্টারনেটিং কারেন্ট এর মানে হচ্ছে পরিবর্তনশীল বিদ্যুৎ বা তড়িৎ । এখানে তড়িৎ প্রবাহের দিক একটি নির্দিষ্ট সময় পর পর বিপরীতগামী হয়ে থাকে । অর্থাৎ একবার নেগেটিভ হয় আবার একবার পজেটিভ হয় । এই একবার নেগেটিভ এবং একবার পজেটিভ সাইকেলের মাধ্যমেই কারেন্ট প্রবাহিত হয় । তাই এক কথায় আমরা বলতে পারি “ সময়ের সাথে যে কারেন্টের দিক এবং মানের পরিবর্তন হয় তাকে এসি কারেন্ট বলা হয় ” ।

AC Current and DC Current Bangla

ডিসি কারেন্ট (DC Current)

ডিসি কারেন্ট বা ডাইরেক্ট কারেন্ট বা অপরিবর্তনশীল বিদ্যুৎ বা তড়িৎ। অর্থাৎ এর মান এবং দিকের কোন পরিবর্তন ঘটেনা । তাই এক কথায় বলা যায় “ যে কারেন্টের মান এবং দিকের কোন পরিবর্তন হয়না তাকে ডিসি কারেন্ট বা ডাইরেক্ট কারেন্ট    বলে ” ।

এসি কারেন্ট এবং ডিসি কারেন্টের মাঝে পার্থক্য কি কি সেগুলো উল্লেখ করা হলোঃ

উৎস বা সোর্স (Source)

এসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ এসি সার্কিটের জন্য জেনারাটরকে উৎস হিসেবে ব্যাবহার করা হয়ে থাকে ।

ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ ডিসি সার্কিটের জন্য ডিসি জেনারাটরকে অথবা ব্যটারীকে উৎস হিসেবে ব্যাবহার করা হয়ে থাকে ।

উপাদান বা প্যারামিটার (Parameter)

এসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ এই সার্কিটের জন্য ক্যাপাসিট্যান্স, ইন্ডাকট্যান্স এবং রেজিস্ট্যান্সকে উপাদান বা প্যারামিটার হিসেবে ব্যাবহার করা হয়ে থাকে ।

ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ এখানে উপাদান বা প্যারামিটার হিসেবে শুধু রোধ বা রেজিস্ট্যান্সকে ব্যাবহার করা হয়ে থাকে ।

চাকুরীর প্রশ্ন এবং উত্তর সমূহ পরতে এখানে ক্লিক করুন

সরবরাহের ফ্রিকুয়েন্সি (Frequency)

এসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ এসি সার্কিটের সরবরাহের ফ্রিকুয়েন্সি এর প্রভাবে ক্যাপাসিট্যান্স এবং ইন্ডাকট্যান্স এর মান বাড়ে এবং কমে ।

ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রে সরবরাহের ফ্রিকুয়েন্সি এর কোন প্রকার প্রভাব পরে না ।

AC Current and DC Current Bangla

যোগ এবং বিয়োগ (Calculation)

এসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ এসি সার্কিটে কারেন্ট এবং ভোল্টেজকে গানিতিকভাবে যোগ এবং বিয়োগ এর পরিবর্তনের জন্য ভেক্টর যোগ এবং বিয়োগ করতে হয় । এর কারন হচ্ছে এসি সার্কিটে কারেন্ট এবং ভোল্টেজের মাঝে ৯০ ডিগ্রি ফেজ পার্থক্য বা ফেজ এঙ্গেল থাকে ।

ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ ডিসি সার্কিটের যোগ এবং বিয়োগ সাধারন গানিতিকভাবেই করা হয় ।

রূপান্তর বা কনভার্ট (Convert)

এসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ এসি কারেন্টেকে রেকটিফায়ারের মাধ্যমে ডিসি কারেন্টে রুপান্তর বা কনভার্ট করা জায় ।

ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ আর ডিসি কারেন্টেকে এসি কারেন্টে রুপান্তর বা কনভার্ট করা খুবই কঠিন এবং ব্যায়বহুল তাই বলা হয় ডিসি কারেন্টেকে এসি কারেন্টে রুপান্তর করা যায় না বা করা হয় না ।

সরবরাহের হ্রাস বৃদ্ধি বা ভারিয়েবল সোর্স (Variable Source)

এসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ ট্রান্সফর্মারের সাহায্যে এসি সার্কিটের সরবরাহ ভোল্টেজকে বাড়ানো বা কমানো যায় ।

ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ কিন্তু ডিসি সার্কিটের সরবরাহ ভোল্টেজকে বাড়ানো বা কমানো যায়না ।

রেগুলেশন (Regulation)

এসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ সাধারণত এসি সার্কিটের ভোল্টেজ ড্রপ অনেক বেশি হয় যে কারনে এসি সার্কিটের রেগুলেশন ভালোনা।

ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ ডিসি সার্কিটের ভোল্টেজ ড্রপ অনেক কম তাই রেগুলেশন ভালো হয় ।

উৎপাদন বা প্রোডাকশন (Production)

এসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ এসি তে সর্বোচ্চ উৎপাদিত ভোল্টেজের পরিমাণ ১৬,৫০০ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে ।

ডিসি সার্কিটের ক্ষেত্রেঃ ডিসি তে সর্বোচ্চ উৎপাদিত ভোল্টেজের পরিমাণ ১৫০০ ভোল্ট পর্যন্ত হয় ।

এসি বেশি বিপদজনক নাকি ডিসি বেশি বিপদজনক ?

এসি এবং ডিসি দুটোই প্রাণঘাতী বিপদজনক, আমরা কিছু তথ্য আপনাদের সামনে তুলে ধরছি তাহলেই বুঝতে পারবেন কোনটা বেশি বিপদজনক ।

  • এসি কারেন্টে ১০০ অ্যাম্পিয়ারের শক মানেই শুধু ১০০ অ্যাম্পিয়ারই নয় কারন কারেন্ট এখানে আপ এবং ডাউন করে তাই এই ক্ষেত্রে ১৪১ অ্যাম্পিয়ার পর্যন্ত শক লাগতে পারে ।
  • ডিসি কারেন্টে ১০০ অ্যাম্পিয়ারের শক মানে শুধু ১০০ অ্যাম্পিয়ারই কারন ডিসিতে কারেন্ট কন্সটান্ট ।
  • এসি কারেন্টে সেকেন্ডে ৫০ থেকে ৬০ বার দিকের পরিবর্তন ঘটে তাই অধিক কম্পাঙ্কের কারেন্ট যখন মানুষের হার্টের মাঝে দিয়ে প্রবাহিত হয় সৃষ্ট কম্পন হার্টের স্বাভাবিক কম্পনের থেকে বেশি হয়ে যায় । তখন হার্ট অসংলগ্নভাবে কাঁপা শুরু করে জেটা স্বাভাবিক রক্ত চলাচলে বাঁধা প্রদান করে । একে বই এর ভাষায় Ventricular Fibrillation বলা হয় ।
  • ডিসি কারেন্টের কম্পাঙ্ক শুন্য তাই ডিসি কারেন্ট হার্ট’কে স্ট্যাচু বা ফ্রিজড করে দেয় । আক্রান্ত ব্যাক্তি কারেন্ট থেকে মুক্ত হওয়ার পরে Fibrillated হার্টের থেকে অনেক সহজে এবং দ্রুত আগের অবস্থানে ফিরে যেতে পারে ।

AC Current and DC Current Bangla

  • আবার কারেন্ট হার্টে প্রবেশে না করে যদি হাত দিয়ে ঢুকে পা দিয়ে বের হয়ে যায় তবুও এসি কারেন্ট বেশি বিপদ । কারন মানব দেহের রোধ ডিসির জন্য সমান হলেও এসির জন্য সমান হয় না ফ্রিকুয়েন্সি এর কারনে । ফ্রিকুয়েন্সি এই রোধ কমিয়ে দেয়, তাই ডিসির তুলনায় এসি বেশি বিপদজনক ।
  • আবার এসি কারেন্টের ফ্রিকুয়েন্সি শরীরের পেশি সমূহকে সংকোচন করে ফেলে যেটা সরবরাহের সাথে আটকে রাখতে অবদান রাখে ।
  • কিন্তু ডিসিতে কারেন্ট কন্সটান্ট বলে শক এর সময় শুরুতে দেহকে টেনে ধরে এবং সাথে সাথে প্রতিক্রিয়া বলের জন্য দেহকে ঝাঁকি দিয়ে বা ছিটকে ফেলে দেয় ।
  • সাধারণত আমরা আমাদের কাজের জন্য অনেক বেশি মানের এসি কারেন্ট ব্যবহার করে থাকি কিন্তু আমরা আমাদের কাজের জন্য অনেক কম মানের ডিসি কারেন্ট ব্যবহার করি যেটা ২৪ ভোল্টের হয়ে থাকে তাই ডিসির তুলনায় এসি কারেন্টে বিপদ বেশি ঘটে ।

চাকুরীর প্রশ্ন এবং উত্তর সমূহ পরতে এখানে ক্লিক করুন

এসি কারেন্ট এবং ডিসি কারেন্টের পার্থক্য ও সহজ বর্ণনা নিয়ে এই ছিলো আমাদের আজকের আয়োজন । আমাদের লিখা ভালো লাগলে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাবেন । এসি কারেন্ট এবং ডিসি কারেন্ট নিয়ে আপনাদের আরো প্রশ্ন থাকলে সেটাও আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন । সবাই ভালো থাকুন এবং EEEcareer এর সাথেয় থাকুন ।

6 COMMENTS

    • আপনাকে স্বাগতম রনি ভাই । আমাদের সাথেই থাকুন ।

  1. এসি এবং ডিসি কারেন্ট নিয়ে অাগে পড়েছি কিন্তু এতো ভালোভাবে বুঝতে পারি নাই।ধন্যবাদ সহজবোধ্য লেখার জন্য।

    • আপনাদের ভালোলাগা আমাদের লিখার আগ্রহ আমাদের আরো বারিয়ে দেয় প্রিয় পাঠক । আমাদের সাথেয় থাকুন ।

LEAVE A REPLY