ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স এর মাঝে পার্থক্য কি কি? | Engineering Bangla

0
4781
engineering

ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স এর মাঝে পার্থক্য কি কি? | Engineering Bangla

আজ আমরা ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স Engineering এর মাঝে কি পার্থক্য আছে সেটা জানার চেস্টা করবো । আমাদের দেশে যারা ডিপ্লোমা Engineering পরে তারা ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং আলাদা আলাদা পরালিখা করে । কিন্তু যখন বি এস ছি করতে যায় তখন ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং একসাথে পরতে হয় ।

মূলত ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স বলতে কি বোঝায় সেটা যদি আমরা প্রথমে বুঝতে পারি তাহলে প্রথমেই আমরা বুঝতে পারব ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং কি আর ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং কি ? কি কি সম্পর্কে জানবো আজ সেগুলো হল । 

engineering

১। ইলেক্ট্রিক্যাল কি?

২। কিছু ইলেক্ট্রিক্যাল ইকুপমেন্টের নাম ।

৩। ইলেক্ট্রনিক্স কি?

৪। কিছু ইলেক্ট্রনিক্স ইকুপমেন্টের নাম ।

চলুন এবার আমরা উপরের চারটা(০৪) বিষয়ের কিছুটা বিস্তারিত জেনে নেই 

ইলেক্ট্রিক্যাল কি?

সাধারণ অর্থে অথবা সহজ ভাষায় ইলেক্ট্রিক্যাল বলতে বিজ্ঞানের নেই শাখাকে বোঝায় যেখানে পরিবাহীর মধ্যে দিয়ে ইলেকট্রনের প্রবাহ এবং ইলেকট্রনের পরিবাহী সম্পন্ন বস্তু যেমনঃ সুইস গিয়ার, জেনারেটর, ট্রান্সফরমার, সার্কিট ব্রেকার, মোটর, ম্যাগনেটিক কন্ট্যাক্টর, পরিবাহীর লাইন ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করা হয় তাকে ইলেক্ট্রিক্যাল বলে ।

কিছু ইলেক্ট্রিক্যাল ইকুপমেন্টের নাম

জেনারেটরঃ এটি এমন একটি যন্ত্র যার সাহায্যে মেকানিক্যাল শক্তিকে ইলেক্ট্রিক্যাল শক্তিতে রুপান্তর করা যায় । আর এই মেকানিক্যাল শক্তিকে ইলেক্ট্রিক্যাল শক্তিতে রুপান্তর করার জন্য আরমেচার, ম্যাগনেটিক ফিলদ, এবং প্রাইম মুভার এর প্রয়োজন হয় ।

সুইস গিয়ারঃ সুইস গিয়ার হচ্ছে নানারকম ইলেক্ট্রিক্যাল ডিভাইস সমূহের সম্পূর্ণ একটা ক্ষেত্র যেখানে সব ইলেক্ট্রিক্যাল ডিভাইস গুলো নিরাপদ থাকে কোন প্রকার ঝুঁকির হাত থেকে ।

engineering

মোটরঃ এক কথায় মোটরের সংজ্ঞা আমরা এভাবে দিতে পারি, যে যন্ত্রের সাহায্যে ইলেক্ট্রিক্যাল শক্তিকে মেকানিক্যাল শক্তিতে রুপান্তর করা হয় তাকে মোটর বলে ।

সার্কিট ব্রেকারঃ সার্কিট ব্রেকার ইলেক্ট্রিক্যাল সিস্টেমে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে । যদি কখনো ইলেক্ট্রিক্যাল সিস্টেমে কোন কারনে কোনপ্রকার ত্রুটি দেখা দেয় তাহলে সার্কিট ব্রেকারের সাহায্যে সেই ত্রুটি থেকে আপনাআপনি সম্পূর্ণ লাইনকে বিচ্ছিন্ন  করাই হচ্ছে সার্কিট ব্রেকারের কাজ ।

ট্রান্সফরমারঃ  এটি  এমন একটি বৈদ্যুতিক ডিভাইস যেটার সাহায্যে ফ্রিকুয়েন্সী এবং পাওয়ারকে ঠিক রেখে কোন ধরনের বৈদ্যুতিক সংযোগ স্থাপন না করে  শুধু মাত্র চুম্বকীয় মাধ্যম দ্বারা সংযুক্ত দুইটি(০২) কয়েলে এর প্রয়োজন অনুযায়ী ভোল্টেজ  বাড়িয়ে অথবা কমিয়ে এক সার্কিট হতে অন্য সার্কিটে পাওয়ার স্থানান্তর করা যায় তাকে  ট্রান্সফরমার বলে ।

ইলেক্ট্রনিক্স কি?

সাধারণ অর্থে অথবা সহজ ভাষায় ইলেক্ট্রনিক্স বলতে বিজ্ঞানের নেই শাখাকে বোঝায় যেখানে সেমিকন্ডাক্টর , সেমিকন্ডাক্টরের মধ্যে দিয়ে ইলেকট্রনের প্রবাহ এবং হোলের প্রবাহ  এবং সেমিকন্ডাক্টর পরিবাহী সম্পন্ন বস্তু যেমনঃ ডায়োড, এস.সি.আর, লজিকগেট, অসিলেটর, ভ্যাকুয়াম টিউব, ট্রানজিস্টর,  ইলেকট্রনিক টিউব,   ইন্টিগ্রেটেড সার্কিট (IC), এমপ্লিফায়ার ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করা হয় তাকে ইলেক্ট্রনিক্স বলে ।

সেমিকন্ডাক্টরঃ সেই সকল পরিবাহীকে সেমিকন্ডাক্টর বলে যেগুলোর ইলেকট্রন বহন ক্ষমতা পরিবাহী এবং অপরিবাহী পদার্থের মাঝামাঝি থাকে তাকে সেমিকন্ডাক্টর বলা হয় ।

ডায়োড: ডায়োড একটি একমুখী ডিভাইস, যেটা কেবল এক দিকে বিদ্যুৎ প্রবাহ প্রদান করে থাকে । যেহেতু এটা এক দিকে বিদ্যুৎ প্রবাহ প্রদান করে তাই অন্য প্রান্ত হতে আশা বিদ্যুৎকে এটা বাঁধা প্রদান করে ।

engineering

ইন্টিগ্রেটেড সার্কিট (IC):  IC  এর পূর্ণ রুপ হচ্ছে ইন্টিগ্রেটেড সার্কিট । ইন্টিগ্রেটেড সার্কিট কে সিলিকন চিপ ও বলা হয়ে থাকে । এটি  মাইক্রো ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস, যেখানে রেজিস্টর, ডায়ড, ট্রানজিস্টর,  ক্যাপাসিটর ইত্যাদি কম্পোনেন্ট সিলিকন চিপের উপর নির্মান করে জোড়া লাগানো হয়ে থাকে এটি ইলেক্ট্রনিক্স এর প্রায় সকল কাজেয় ব্যবহার হয়া থাকে ।

 ট্রানজিস্টরঃ ট্রানজিস্টর একটি  অর্ধপরিবাহী মাধ্যম । ট্রানজিস্টর বৈদ্যুতিকভাবে নিয়ন্ত্রিত সুইচ এবং  অ্যামপ্লিফায়ার   হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে থাকে  এই  ট্রানজিস্টরের মিনিমাম তিনটা সংযোগ থাকে ।

আজকের ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স নিয়ে এগুলোয় ছিল আমাদের আজকের আলচনা । আমরা চেষ্টা করেছি খুব সহজ ভাষায় আপনাদের সামনে ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স এর মাঝে পার্থক্য গুলো তুলে ধরার । আশা করছি আমাদের আলচনা থেকে আপনারা ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স এর মূল পার্থক্যগুলো বুঝতে পারবেন । আমাদের তথ্যতে ভুল থাকলে আপনাদের সাহায্য আমাদের একান্ত কাম্য । সাথে থাকুন EEEcareer এর ।

 

LEAVE A REPLY